১২ হাজার নমুনায় শনাক্ত ২৯৬০, মৃত্যু ৩৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঢাকা;  বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আরো ৩৫  জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময়ে আক্রান্ত হয়েছেন আরো ২৯৬০ জন। এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ২ লাখ ২৯  হাজার ১৮৫ জন। আর মোট মারা গেছেন ৩ হাজার জন। আজ নমুনা পরীক্ষাকরা হয়েছে ১২৭১৪ টি।

আজ মঙ্গলবার (২৮ জুলাই ২০২০)  দুপুর আড়াইটায় স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ তথ্য জানান অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা: নাসিমা সুলতানা।

তিনি বলেন, ‘আমরা গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ১৩ হাজার ৭০টি। আর নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১২ হাজার ৭১৪টি। মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১১ লাখ ৩৭ হাজার ১৩১টি। ২৪ ঘণ্টায় এই সংগৃহীত নমুনা থেকে শনাক্ত রোগী পেয়েছি ২ হাজার ৯৬০ জন। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২৩ দশমিক ২৮ শতাংশ। এ পর্যন্ত শনাক্ত ২ লাখ ২৯ হাজার ১৮৫ জন। শনাক্তের হার ২০ দশমিক ১৫ শতাংশ।’

অধ্যাপক নাসিমা বলেন, ‘২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে ১ হাজার ৭৩১ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছে ১ লাখ ২৭ হাজার ৪১৪ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৫ দশমিক ৫৯ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণ করেছে ৩৫ জন। এ পর্যন্ত মৃত্যু দাঁড়ালো ৩ হাজার জন। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩১ শতাংশ। মৃত্যু বিশ্লেষণে পুরুষ ২৬ জন এবং নারী ৯ জন। এ পর্যন্ত মৃত্যুবরণ করেছেন পুরুষ ২ হাজার ৩৫৮ জন এবং নারী ৬৪২ জন।’

৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হওয়ার কথা জানায় সরকার। ১৮ মার্চ কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে প্রথম ব্যক্তির মৃত্যু হয়।

গতকালের (২৭  জুলাই ২০২০) তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আরও  ৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময়ে আক্রান্ত হয়েছেন আরো ২ হাজার ৭৭২ জন। এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ২ লাখ ২৬ হাজার ২২৫ জন। আর মোট মারা গেছেন ২ হাজার ৯৬৫ জন।গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১২ হাজার ৮৫৯টি। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২১.৫৬ শতাংশ এবং এ পর্যন্ত ২০.১২ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৮০১ জন এবং এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ২৫ হাজার ৬৮৩ জন। সুস্থতার হার ৫৫.৫৬ শতাংশ। মৃত্যুর হার ১.৩১ শতাংশ। মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে পুরুষ ২৬ জন ও নারী ১১ জন। এবং এ পর্যন্ত মারা গেছেন পুরুষ ২ হাজার ৩৩২ জন ও নারী ৬৩৩ জন। বয়স বিশ্লেষণে জানা যায়, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে একজন, ৩১-৪০ একজন, ৪১-৫০ সাতজন, ৫১-৬০ সাতজন, ৬১-৭০ ১২ জন, ৭১-৮০ আটজন, ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে একজন। হাসপাতালে মারা গেছে ৩৩ জন এবং বাড়িতে চারজন। ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে নেয়া হয়েছে ৫৫০ জনকে এবং আইসোলেশন থেকে ছাড় দেয়া হয়েছে ৬৭৫ জনকে।

আমাদের বাণী ডট কম/২৭ জুলাই ২০২০/পিপিএম

সৈয়দপুরের বিজ্ঞাপন

About আমাদের বাণী

Check Also

গাজায় ইসরাইলের আগ্রাসন, নিহত বেড়ে ১৪৩

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় আজ শনিবার সকালেও বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। গাজা থেকে হামাসও ইসরায়েলে রকেট …